বিপুলা পৃথিবী – শঙ্খ ঘোষ

একদিন সে এসে পড়েছিল এই ভুল মানুষের অরণ্যে। হাতে তাদের গা ছুঁতে গিয়ে কর্কশ বল্কল লাগে বারে বারে। আজ মনে হয় কেন সে গিয়েছিল। সে কি ভেবেছিল তার চিকন মোহ…

Continue Reading

কবর – শঙ্খ ঘোষ

আমার জন্য একটুখানি কবর খোঁড়ো সর্বসহা লজ্জা লুকোই কাঁচা মাটির তলে-- গোপন রক্ত যা-কিছুটুক আছে আমার শরীরে, তার সবটুকুতেই শস্য যেন ফলে। কঠিন মাটির ছোঁয়া বাতাস পেয়েছি এই সমস্ত দিন--…

Continue Reading

ঝরে পড়ার শব্দ জানে তুমি আমার নষ্ট প্রভু! – শঙ্খ ঘোষ

১. নষ্ট হয়ে যায় প্রভু, নষ্ট হয়ে যায়। ছিলো, নেই- মাত্র এই; ইটের পাঁজায় আগুন জ্বালায় রাত্রে দারুণ জ্বালায় আর সব ধ্যান ধান নষ্ট হয়ে যায়। ২. নষ্ট হয়ে যাবার…

Continue Reading

হাতেমতাই – শঙ্খ ঘোষ

হাতের কাছে ছিল হাতেমতাই চূড়োয় বসিয়েছি তাকে দুহাত জোড় করে বলেছি ‘প্রভু দিয়েছি খত দেখো নাকে। এবার যদি চাও গলাও দেব দেখি না বরাতে যা থাকে - আমার বাঁচামরা তোমারই…

Continue Reading

শূন্যের ভিতরে ঢেঊ – শঙ্খ ঘোষ

বলিনি কখনো? আমি তো ভেবেছি বলা হয়ে গেছে কবে। এভাবে নিথর এসে দাঁড়ানো তোমার সামনে সেই এক বলা কেননা নীরব এই শরীরের চেয়ে আরো বড়ো কোনো ভাষা নেই কেননা শরীর…

Continue Reading

ফুলবাজার – শঙ্খ ঘোষ

পদ্ম, তোর মনে পড়ে খালযমুনার এপার ওপার রহস্যনীল গাছের বিষাদ কোথায় নিয়ে গিয়েছিল? স্পষ্ট নৌকো, ছৈ ছিল না, ভাঙা বৈঠা গ্রাম হারানো বন্য মুঠোয় ডাগর সাহস, ফলপুলন্ত নির্জনতা আড়ালবাঁকে কিশোরী…

Continue Reading

শূন্যের ভিতরে ঢেঊ – শঙ্খ ঘোষ

বলিনি কখনো? আমি তো ভেবেছি বলা হয়ে গেছে কবে। এভাবে নিথর এসে দাঁড়ানো তোমার সামনে সেই এক বলা কেননা নীরব এই শরীরের চেয়ে আরো বড়ো কোনো ভাষা নেই কেননা শরীর…

Continue Reading
Close Menu